ভোরের জানালা

জনগণের কল্যাণে অগ্রদূত

তাহেরপুর পৌরসভায় বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় খন্দকার সায়লা পারভীন মেয়র নির্বাচিত

1 min read

বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুর পৌরসভার উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে খন্দকার সায়লা পারভীন এবং কাউন্সিলর পদে আমিনুল হক বিনা প্রতীদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। বৃহস্পতিবার (২২ফেব্রুয়ারী) ওই দুই পদের অন্যান্য প্রার্থী তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয়ায় মেয়র ও নয় নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে কোন ভোট হচ্ছেনা।
জানা যায়, তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় মেয়র পদ শূণ্য হয় এবং একই পৌরসভার নয় নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রইচ উদ্দিন মৃত্যু বরন করায় ওই পদ শূণ্য হয়।
এদিকে চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারী ওই দুই পদে উপ-নির্বাচনের জন্য গণ-বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তফশিল ঘোষনা করেন সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহিনুর ইসলাম প্রামানিক। গণ-বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আগামী ৯মার্চ ওই দুই পদে নির্বাচনের তারিখ ঘোষনা করা হয়। ১৩ ফেব্রুয়ারী ছিল মনোনয়নপত্র জমাদানের সময়। এতে মেয়র পদে খন্দকার সায়লা পারভীন ও তানভীর ইসলাম ফেরদৌস এর মনোনয়নপত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। এছাড়াও নয় নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে খয়রা গ্রামের সাইফুল ইসলাম, একই গ্রামের সোনালপাড়ার সোহেল রানা, চকপাড়ার ওসমান কাজী, সরকারপাড়ার আমিনুল হক, দালানপাড়ার ওহিদুল ইসলাম এবং খয়রা গ্রামের আখতার হোসেনসহ ছয়জন মনোনয়ন পত্র জমা দেন।
বৃহস্পতিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে মেয়র পদে তানভীর ইসলাম ফেরদৌস তার মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। অপরদিকে কাউন্সিলর পদে আমিনুল হক ছাড়া অপর প্রার্থীরাও তাদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ জানান, মেয়র পদে তানভীর ইসলাম ফেরদৌস তার মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেয়ায় খন্দকার সায়লা পারভীন বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। এছাড়াও কাউন্সিলর পদে ছয়জন প্রার্থীর মধ্যে পাঁচজন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেয়ায় আমিনুল হক বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হচ্ছেন যা রিটার্নিং কর্মকর্তা ঘোষনা করবেন।

Please follow and like us:
স্বত্ব © ২০২৪ ভোরের জানালা | Developed by VJ IT.
Translate »