1. info@vorerjanala.com : admin : মেহেদী হাসান রিয়াদ
  2. parvessarker122@gmail.com : Md Parves : Md Parves
  3. anarul.roby@gmail.com : সহকারী ডেস্ক :
  4. i.am.saiful600@gmail.com : Saiful Islam : Saiful Islam
  5. billaldebidwar@gmail.com : MD Billal Hossain : MD Billal Hossain
  6. cricket.sajib@gmail.com : Md. Sazib Mandal : Md. Sazib Mandal
  7. subrotostudio35@gmail.com : Subroto Sorkar : Subroto Sorkar
রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের মানবন্ধন - ভোরের জানালা
সর্বশেষ
রাজশাহী বাঘায় ক্ষমতার দাপটে পৌর রাস্তা দখল ও ইমারত নির্মানের অভিযোগ রাজশাহীতে ধর্ষন মামলায় অভিযুক্ত ছেলেকে নির্দোষ দাবি করে সংবাদ সম্মেলন দেবিদ্বারে সম্ভাব্য পৌর মেয়র প্রার্থী কাশেম চেয়ারম্যান’র নির্বাচনী শোডাউন আলুর সর্বোচ্চ দাম ৩০টাকা কেজি নির্ধারণ করল সরকার কঠোর মনিটরিং ও নজরদারির নির্দেশ ডিসিদের পোনরা নবারুণ সংঘের উদ্যোগে মিনি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত পৌর মেয়র প্রার্থী ভিপি বাবুল হোসেন রাজু’র উঠান বৈঠক দেবিদ্বারে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী ভিপি বাবুল হোসেন রাজু’র গণসংযোগ দেবিদ্বার নাগ‌রিক ক‌মিটির আহবা‌নে মাসব্যাপী পরিচ্ছন্নতা অভিযান এর শুভ উদ্ভোধন বড় বোনের সাবেক স্বামী কর্তৃক পাশবিক নির্যাতনের শিকার ইবি শিক্ষার্থী তিন্নি তানোরে মাসিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

আজ

  • আজ বৃহস্পতিবার, ২২শে অক্টোবর, ২০২০ ইং
  • ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল)
  • ৪ঠা রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী
  • এখন সময়, দুপুর ১২:১১

রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিতে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের মানবন্ধন

  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৬০ দেখেছেন

সৌমেন মন্ডল:- রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে বিনাচিকিৎসায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর মৃত্যু এবং ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হামলার প্রতিবাদে এবার মাঠে নামল সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ। সংগঠনটি রবিবার সকালে রামেক হাসপাতাল সংলগ্ন নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। মানববন্ধন থেকে হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত, মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলাকারী ইন্টার্ন চিকিৎসকদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি ও হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকারে সাত দিনের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। এসব দাবি পূরণ না হলে রাজশাহীবাসী রামেক হাসপাতাল ঘেরাও করে দাবি আদায় করবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। এ কর্মসূচিতে মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবিরা অংশগ্রহণ করে হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের দৌরাত্ম বন্ধের দাবি জানান।

রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মো. লিয়াকত আলীর সভাপতিতে কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সাংগাঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, মোহনপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুস সালাম, জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, উন্নয়নকর্মী সুব্রত পাল, মুক্তিযোদ্ধা হাকিম আতাউর রহমান, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহসভাপতি মামুন-অর-রশিদ ও রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক। রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. জামাত খানের পরিচালনায় এতে আরও বক্তব্য দেন- মহিলা পরিষদের নেত্রী আকলিমা খাতুন লিমা, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের রাজশাহীর সহসভাপতি সেলিনা বেগম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হাসান খন্দকার, সমাজকর্মী মো. আরিফুল ইসলাম, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যাস সুফিয়া হাসান, প্রকৌশলী খাজা তারেক, জেলা লোকমোর্চার সহসভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন আল আজাদ, মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের সভাপতি আবদুল মতিন, মুক্তিযোদ্ধা বজলার রহমান, উন্নয়নকর্মী গোলাম নবী রনি, জেলা ছাত্রলীগের নেতা আনোয়ার পাশা, যুবনেতা কেএম জোবাইদুর রহমান প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তার বলেন, রামেক হাসপাতালে চিকিৎসা অবহেলায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর মৃত্যু এবং মুক্তিযোদ্ধা ও তার সন্তানের ওপর হামলার ঘটনাটি ঘটিয়েছেন ইন্টার্ন নামের কিছু গুন্ডা চিকিৎসক। এ হামলার ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন তারা। চিকিৎসা অবহেলায় মৃত্যু এবং মুক্তিযোদ্ধা ও তার সন্তানের ওপর হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনের দাবি ও রামেক হাসপাতালে সাংবাদিকদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত না হলে প্রয়োজনে ধর্মঘটসহ কঠোর আন্দোলনে নামবে রাজশাহীবাসী। প্রসঙ্গত, গত ২ সেপ্টেম্বর হাসপাতালে পারুল বেগম (৬৫) নামের এক নারীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। চিকিৎসকের গায়ে হাত তোলার অভিযোগে ওই নারীর ছেলেকে আটক করে পিটিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। পরে হাসপাতালের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। সেদিন বিকেলে আদালত থেকে জামিন নিয়ে রাকিবুল ইসলাম নামের ওই ব্যক্তি মায়ের দাফনের কাজে অংশ নেন। কোমরের ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে হার্ট অ্যাটাকে মায়ের মৃত্যু হয়।

এ সময় ইন্টার্ন চিকিৎসকদের অনেক ডাকাডাকি করলেও কেউ চিকিৎসা করেনি। উল্টো এর প্রতিবাদ করলে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা নিহতের ছেলে রাকিবুলকে মারধর করেছেন। বাধা দিতে গেলে তার মুক্তিযোদ্ধা বাবা ইসহাক আলীকেও মারধর করেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। এ ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে দিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এই কমিটি প্রত্যখান করে শনিবার মানববন্ধন করেছেন রাজশাহীর মুক্তিযোদ্ধারা। আর ইন্টার্নদের হামলার ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা ইসাহাক আলীও শনিবার দুই ইন্টার্নসহ তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন।

সবার সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

অন্যান্য সংবাদ পড়ুন
  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
  • © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার ‘ভোরের জানালা ডট কম’ কর্তৃক সংরক্ষিত।
সাইট ডিজাইন এন্ড ডেভেলপ মেহেদী হাসান রিয়াদ - 01760-955268
error: দুঃখিত, আপনি আমাদের নিউজ চুরি করতে পারবেন না। ধন্যবাদ।