1. abdulla914559@gmail.com : Abdullah Al Mamun : Abdullah Al Mamun
  2. info@vorerjanala.com : admin : মেহেদী হাসান রিয়াদ
  3. parvessarker122@gmail.com : Md Parves : Md Parves
  4. anarul.roby@gmail.com : সহকারী ডেস্ক :
  5. i.am.saiful600@gmail.com : Saiful Islam : Saiful Islam
  6. sailorinfotech@gmail.com : N H Nahid : N H Nahid
  7. nu356548@gmail.com : Nasiruddin Liton : Nasiruddin Liton
  8. billaldebidwar@gmail.com : MD Billal Hossain : MD Billal Hossain
  9. rustom.ali.ml@gmail.com : Rustom Ali : Rustom Ali
  10. cricket.sajib@gmail.com : Md. Sazib Mandal : Md. Sazib Mandal
  11. journalistsojibakbor01713@gmail.com : Sojib Akbor : Sojib Akbor
  12. subrotostudio35@gmail.com : Subroto Sorkar : Subroto Sorkar
চট্টগ্রামে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণ, নিহত ৭ » ভোরের জানালা ডট কম
সর্বশেষ
মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে জাতীয় শোক দিবস পালিত নাটোরের কলেজছাত্রকে বিয়ে করা সেই সহকারী অধ্যাপকের মরদেহ উদ্ধার ‘বঙ্গমাতা অদম্য উদ্যোক্তা’ অনুদান পেলেন সিলেট বিভাগের ১০ নারী জামালপুর জেলা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন চবির নতুন নেতৃত্বে শাহরিয়ার-শিশির লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডার (এল.এস.পি) কুমিল্লা জেলা শাখার সম্মেলন সন্দেহজনক ভাবে আটককৃত হৃদয়(বান্টি) নিরপরাধ | রাজনৈতিক কোন দলের সংশ্লিষ্টতা নেই গ্রিন ডেভেলপমেন্ট ও জ্বালানি সাশ্রয়ী আইসিটি অবকাঠামো তৈরিতে হুয়াওয়ের নতুন সল্যুশন সাংবাদিকরা হলেন জাতির বিবেক – সাংসদ এনামুল হক যুদ্ধে নামছে দেশবাংলা কক্সবাজারে ’দৈনিক দেশবাংলা’ পত্রিকার প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত

আজ

  • আজ শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ ইং
  • ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল)
  • ২০শে মুহররম, ১৪৪৪ হিজরী
  • এখন সময়, দুপুর ২:০৩

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণ, নিহত ৭

  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯

চট্টগ্রাম নগরীর পাথরঘাটা এলাকায় গ্যাস লাইনের রাইজার বিস্ফোরণে সাত জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন।

রবিবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ৯টার দিকে পাথরঘাটার বড়ুয়া ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিসের আগ্রাবাদ স্টেশনের সহকারী পরিচালক পূর্ণচন্দ্র মুৎসুদ্দি এ তথ্য জানান।

নিহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন চট্টগ্রামের এ্যানি বড়ুয়া (৪৩) ও কক্সবাজারের উখিয়ার নজরুল ইসলাম (৩১)।

বড়ুয়া ভবনটির সামনের পান দোকানদার মঞ্জুর আলম জানান, সকাল পৌনে ৯টার দিকে বিকট শব্দ শোনেন তিনি। এর পরপরই ওই ভবনটির দেয়াল ধসে তার দোকানের পাশে জনতা ফার্মেসির সামনে আছড়ে পড়ে। পরে তিনি দেখতে পান তার দোকানের আশেপাশে কয়েকজন পড়ে আছে। এসময় অনেকেই এসে হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। এদের মধ্যে বেশিরভাগই পথচারী।

ঘটনার সময় জনতা ফার্মেসিতে ঝাড়ু দিচ্ছিলেন স্টাফ অনুপম ঘোষ। তিনি জানান,  ফার্মেসির ভেতরে ঝাড়ু দিচ্ছিলেন তিনি। হঠাৎ বিকট শব্দ হয়ে দেয়াল ধসে দোকানের সামনে পড়ে। এতে ফার্মেসির সামনের অংশ ভেঙে যায়। তিনি ভেতরে থাকায় তার তেমন কোনও সমস্যা হয়নি। বের হয়ে দেখেন রাস্তার পাশে কয়েকজন পড়ে আছেন। এর মধ্যে চার-পাঁচ জনকে তিনি মৃত অবস্থায় পান। 

তিনি আরও জানান, এদের মধ্যে একজন পিএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। এছাড়া সাত-আট বছরের এক শিশুকে তারা উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

ফার্মেসির মালিক টিটু কুমার নাথ বলেন, আমি দোকানে ছিলাম না। বাসা থেকে বিকট শব্দ শুনে দোকানের সামনে এসে দেখি, রাস্তায় অনেকেই পড়ে ছিল। আমরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই।

এদিকে পাশের ভবনের তৃতীয় তলার বাসিন্দা সজল কান্তি পাল জানান, বিস্ফোরণের বিকট শব্দে তাদের দরজা ভেঙে পড়ে গেছে। এছাড়া তাদের ওই ভবনের অনেক ঘরের জানালা ভেঙে গেছে।

ফায়ার সার্ভিসের আগ্রাবাদ স্টেশনের সহকারী পরিচালক পূর্ণচন্দ্র মুৎসুদ্দি বলেন, ‘বড়ুয়া ভবনের সামনে গ্যাস লাইনের রাইজার বিস্ফোরণের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে ১৭ জনকে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। এদের মধ্যে সাত জন মারা গেছেন বলে শুনেছি। বিস্ফোরণের কারণে একটি দেয়াল ধসে পড়েছে। আমরা সেটি অপসারণ করে আর কেউ হতাহত আছে কিনা দেখছি।’

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার বলেন, ‘পাথরঘাটা গ্যাস লাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৭ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তাদের মধ্যে সাত জনকে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেছেন। অন্যদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

সবার সাথে শেয়ার করুন

অন্যান্য সংবাদ পড়ুন

tv 21

  • এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
  • © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার ‘ভোরের জানালা ডট কম’ কর্তৃক সংরক্ষিত।
সাইট ডিজাইন এন্ড ডেভেলপ মেহেদী হাসান রিয়াদ - 01760-955268
error: এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।