ভোরের জানালা

জনগণের কল্যাণে অগ্রদূত

রাজবাড়ীতে ছাগল চুরি দেখে ফেলায় ভোটকেন্দ্র পাহারায় থাকা গ্রাম পুলিশকে হত্যা; রহস্য উদঘাটন

1 min read

বাবলু শেখ, রাজবাড়ী প্রতিনিধি:

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র নিরাপত্তা কর্মী গ্রাম পুলিশ রঞ্জিত দে’র রহস্যময় মৃত্যুর জাল খুলেছে পুলিশের ৫ বিশেষজ্ঞ তদন্ত কমিটি। এই রহস্যময় মৃত্যুর উদঘাটন করেন এডিশনাল এসপি, মুকিম সরকার, সার্কেল এসপি পাংশা সুমন সাহা, ডিবি ওসি রাজবাড়ী মনিরুজ্জামান, অফিসার ইনচার্জ ওসি আলমগীর হোসেন বালিয়াকান্দি, তদন্তকারী অফিসার, এস আই রাজিব।

রাজবাড়ী বালিয়াকান্দি উপজেলা চর আরকান্দি জাতীয় নির্বাচনের ভোট কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা গ্রাম পুলিশ রঞ্জিত দে’কে গত ৬ই জানুয়ারি ২০২৪ অর্থাৎ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগের দিন রাতে প্রাকৃতিক ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে নির্মমভাবে প্রাণ দিতে হয়।

আসামি মুক্তার, সঙ্গে আরো দুই জনকে নিয়ে তার দ্বিতীয় শ্বশুরবাড়ি এলাকায় একটি গ্রামের মিরাজ ও হারুন এর বাড়ি হইতে ছাগল চুরি করে নিয়ে আরকান্দি ভোটকেন্দ্রের পিছনে অবস্থান করিলে সেখানে রঞ্জিত দে প্রাকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে ছাগল চোরদের দেখে ফেলে। তখন রঞ্জিত দে বলেন, তোমাদের ছাগল চুরির অপরাধে জন্য আমি পুলিশে দেব।

তখনই ক্ষিপ্ত হয়ে চোর চক্র মাফলার গলায় পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে রঞ্জিতকে হত্যা করে। তদন্ত টিম ঘটনাস্থলে ইজি বাইকের চাকার দাগ, পুরা মবিল দেখতে পায়। এই সূত্র ধরে ছাগল চুরি হওয়া বাড়িতে গিয়ে একই রকমের আলামত দেখা যায়। সাবেক চরমপন্থী এলাকা হওয়ায় পুলিশের ধারণা অন্যদিকেও ছিল বলে জানা যায়।

আসামীর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ফরিদপুরের মধুখালী থানাধীন হতে একটি ইজিবাই ও একটি ছাগল উদ্ধার করা আরেকটি ছাগল নোয়াপাড়া বিক্রি করে, অন্য ছাগল ব্যাপারীর মাধ্যম দিয়ে চট্টগ্রামে কসাইয়ের নিকট বিক্রি করা হয়।

হত্যাকান্ডে জড়িত অন্য দুইজন আসামির নাম তদন্তর স্বার্থে ও গ্রেফতারের স্বার্থে প্রকাশ করেনি পুলিশ।

এদিকে নির্বাচনীয় ভোটকেন্দ্র পাহারা কালীন অবস্থায় মৃত্যু হওয়ায় মামলাটি আলোচিত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়, ঢাকা পুলিশ অফিস হতেও স্পেশাল রিপোর্ট অ্যান্ড কেস হিসাবে গুরুত্ব দেয়া হয় বলে সাংবাদিক সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার জি এম আবুল কালাম আজাদ জানান।

Please follow and like us:
স্বত্ব © ২০২৪ ভোরের জানালা | Newsphere by AF themes.
Translate »