ভোরের জানালা

জনগণের কল্যাণে অগ্রদূত

বখাটে প্রেমিকের ব্লাকমেইলে স্কুলশিক্ষার্থীর আত্মহত্যা, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

1 min read

এনামুল হক, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রেমিকের ব্লাকমেইলের জেরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আপত্তিকর ভিডিওচিত্র ধারণ করে সেটা ছড়িয়ে দেওয়ার পর লজ্জায়, অপমানে শাহারিয়ার জান্নাত ছোয়া নামের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গত (১৭ ফেব্রুয়ারী) শনিবার উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের নগর কাটগড়া মনমথ গ্রামে। এঘটনায় বখাটে প্রেমিক রায়হান কবীর মজিদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে। শনিবার (২৪শে ফেব্রুয়ারী) দুপুর ৩টায় কাটগড়া দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এই মানববন্ধন করা হয়। মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বাজার প্রদক্ষিন করে।

এসময় কাটগড়া দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসী উপস্থিত ছিলেন। নিহত শাহারিয়ার জান্নাত ছোয়া(১৬) নগর কাটগড়া মনমথ গ্রামের শাহাজানের মেয়ে। সে কাটগড়া দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। গত শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে এগারটার দিকে ঝুলন্ত অবস্থায় ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলে থাকতে দেখে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক ডেকে আনলে তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

অভিযুক্ত বখাটে প্রেমিক রায়হান কবীর মজিদ (১৭) বামনডাঙ্গা রেল কলোনি গ্রামের মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে এবং কাটগড়া দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে এখনো পলাতক আছেন। এপ্রতিবেদন লেখার আগ পর্যন্ত ইউডি মামলা ছাড়া অন্যকোন মামলা দায়ের হয়নি। মানবন্ধনে নিহত শাহারিয়ার জান্নাত ছোয়ার পিতা শাহাজান মিয়া অভিযোগ করেন, বখাটে রায়হান কবীর মজিদ এলাকায় নেশাখোর হিসেবে পরিচিত এবং ইভটিজিং এর মতো অপরাধের অভিযোগ আছে।রায়হান কবীর মজিদ তার মেয়েকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিভিন্ন সময়ে অর্থ হাতিয়ে নিত। সর্বশেষ ব্লাকমেইল করে মেয়ের সর্বস্ব হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা। পরবর্তীতে আরো টাকা দেয়ার জন্য চাপ দেয়। মেয়ের কোচিং সেন্টার ও স্কুলে তার সহপাঠীদের মধ্যে এটা নিয়ে আলোচনা সমালোচনা হয়। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ক্ষোভে-লজ্বায় সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

অভিযোগ করে মেয়েটির বাবা শাহাজান মিয়া দাবি করছে, রায়হান কবীর মজিদের কাছে কোন অডিও, ভিডিও কিংবা রেকর্ডিং থাকতে পারে যেটা দিয়ে সে তার মেয়েকে ব্লাকমেইল করতো। টাকা চাইতো টাকা না দেয়ার কারণে মেয়ের কাছে তাকে হত্যার হুমকিও দিত বখাটে রায়হান কবীর মজিদ ।

নিহত মেয়ের সহপাঠীরা জানান, রায়হান কবীর মজিদের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিভিন্ন সময়ে সে চাপ প্রয়োগ করে টাকা নিতো। সর্বশেষ সে টাকা ও বিভিন্ন সময় তাদের দুজনের ঘনিষ্ঠ কিছু সময় কাটানোর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেড়ে দিবে মর্মে চাপ দিত। এথেকে ধারণা করা হচ্ছে আপত্তিকর কোন ছবি কিংবা ভিডিও দেখিয়ে ব্লাকমেইল করে সে টাকা নিত।এছাড়াও বখাটে রায়হান কবীর মজিদ বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একাধিক ফেইক আইডি খুলে মেয়েকে ও তার সহপাঠীদের মাধ্যমে ভয়ভীতি প্রদর্শন করতো।

এদিকে নিহত শাহারিয়ার জান্নাত ছোয়ার সুইসাইড নোট ঘেটে দেখা যায়, ছোয়া লিখেছেন আমি বাঁচতে চেয়েছিলাম,,কিন্তু এই পৃথিবীর নরপশুরা আমাকে বাঁচতে দেয়নি,,,ওরা আমাকে কাফনের কাপড় পড়ায় ছাড়ছে।

সুন্দরগঞ্জ থানা (ওসি) তদন্ত মিলন চ্যাটার্জী জানান, একটি ইউ ডি মামলা হয়েছে, গত রবিবার নিহতের ময়নাতদন্ত হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইন নানুগক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please follow and like us:
স্বত্ব © ২০২৪ ভোরের জানালা | Developed by VJ IT.
Translate »