ভোরের জানালা

জনগণের কল্যাণে অগ্রদূত

ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাড়ি থেকে বৃদ্ধের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

1 min read

মোঃ মামুন অর-রশীদ, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের রেল স্টেশন রোড়ের ছিট চিলারং এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে নুরুল ইসলাম (৮২) নামে এক বৃদ্ধের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৯ জুন) দুপুরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রোড রেলওয়ে স্টেশন এলাকার বাড়ি থেকে তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত নুরুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও সুগার মিলের অবসরপ্রাপ্ত ১ জন শ্রমিক ছিলেন।

প্রতিবেশী আহসান হাবিব জানায়, নুরুল ইসলাম ওই বাড়িতে একাই থাকতেন। তার পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে কোন যোগাযোগ ছিল না। তিনি তার স্ত্রীর সাথেও কথা বলতেন না। প্রায় সময় তিনি স্ত্রীর সাথে অত্যাচার করতেন।
অপর প্রতিবেশী জুই চৌধুরী বলেন, “মৃত নুরুল ইসলাম গত শনিবার আর স্ত্রীর সাথে খারাপ ব্যবহার করেন। উনার স্ত্রী চলে যাওয়ার পর তিনি বাইরের গেটে তালা দিয়ে রাখেন, অন্যদিকে কোন প্রতিবেশী উনার খোঁজখবর আর রাখেননি, ফলে তিনি কখন মারা গেছেন সে ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত নয়।”
আজ স্থানীয়রা তার বাড়ি থেকে পঁচা গন্ধ পায়। পরে স্থানীয় এলাকাবাসীরা ওয়ার্ড কমিশনারকে খবর দিলে তিনি পুলিশকে তা অবহিত করেন। পুলিশ এসে তার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে।

প্রাথমিকভাবে পুলিশ ধারণা করছে অসুস্থ জনিত কারণেই সে স্টোক করে মারা যেতে পারেন।

নুরুল ইসলামের স্ত্রী মোছা: রুপ্তন নেছা বলেন, আমার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। তিনি প্রতিদিন ইনহেলার নিতেন। আমাদের একটি মাত্র ছেলে সন্তান। সেও পড়াশোনার জন্য রংপুর থাকে আর আমি চাকরির সুবাদে পীরগঞ্জে থাকি। ৮দিন আগে বাড়ি এসে স্বামীর সাথে দেখা হয়েছিল আমার। তারপর থেকে আর দেখা হয়নি । আজকে এসে দেখি তার গলিত মরদেহ ঘরে পরে আছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম ফিরোজ ওয়াহিদ বলেন, ঐ ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন রোগে অসুস্থ ছিলেন ও তার সাথে বাড়ির লোকজনের বনাবনি ছিলনা। তাই তিনি বাড়িতে একাই থাকতেন। গত শনিবারের পর থেকে তার খোঁজ আর কেউ নেননি। ঐ দিনের পর থেকে যে, তার মৃত্যু কবে হয়েছে তা বলা যাচ্ছে না। দেহে পঁচন ধরেছে। আমরা ঘটনাস্থলে এসে লাশের পাশে ইনহেলার পেয়েছি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, লাশ দেখে প্রাথমিকভাবে হত্যা মনে করছি না। এটা অসুস্থ জনিত কারণে হয়তো তার মৃত্যু হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্টে জানা যাবে মৃত্যুর সঠিক কারণ।

Please follow and like us:
স্বত্ব © ২০২৪ ভোরের জানালা | Newsphere by AF themes.
Translate »